সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:১৫ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
“স্বাধীনবাংলা” টেলিভিশন (IP tv) পরিক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে । “ স্বাধীনবাংলা টেলিভিশন” এ দেশের সকল জেলায় প্রতিনিধি নিযুক্ত করা হবে। আগ্রহী প্রার্থীগন সিভি পাঠান এই ঠিকানায়ঃ cv.shadhinbanglatv@gmail.com, Android Apps on Google Play থেকে ডাউনলোড করতে Shadhin Bangla Television লিখে সার্চ করুন ***

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আবেদন ফি আদায় বন্ধ, মেধা তালিকা প্রকাশ ও দ্বিতীয়বার পরীক্ষার সুযোগ বহাল রাখার দাবিতে বাসদের বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

স্বাধীনবাংলা রির্পোটঃ

আজ ১৪ নভেম্বর ২০২১ গুচ্ছভুক্ত ২০ টি বিশ্ববিদ্যালয় এর ভর্তিতে আবেদন-ফি আদায় বন্ধ, অবিলম্বে মেধা তালিকা প্রকাশ ও ২য়বার পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ বহাল রাখার দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সামনে পূর্বঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি পালন করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। সমাবেশে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল কাদেরী জয়ের সভাপতিত্বে ও ঢাকা নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক অনিক কুমার দাসের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সংগিঠনের  কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দীন প্রিন্স, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুস্মিতা মরিয়ম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সদস্য সুহাইল আহমেদ শুভ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ইমাম হাসান। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক ও ঢাকা নগর শাখার সভাপতি মুক্তা বাড়ৈ।

আরও পড়ুনঃ

বাড়ছে নির্মাণ সামগ্রীর দাম: অল্প সঞ্চয়ীদের বাড়ি নির্মাণ এখন দুঃস্বপ্ন

মাদক উৎপাদনকারী দেশ না হয়েও ভৌগলিক কারণে মাদক সমস্যার কবলে বাংলাদেশ – স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আবরার হত্যা মামলার রায় আগামী ২৮ নভেম্বর ধার্য করেছে আদালত

আজ এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু

সমাবেশে বক্তারা বলেন, শিক্ষার্থীদের অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় গুলো আবেদন-ফি’র নামে যে ব্যবসা শুরু করেছে, এটা অন্তত বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে কাম্য নয়। করোনায় প্রায় সাড়ে তিন কোটি মানুষ যখন নতুন করে দারিদ্রসীমার নীচে চলে গেছে তেমন সময়ে গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য একজন শিক্ষার্থীকে গুনতে হবে প্রায় ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা। কোন রকম মেধা তালিকা প্রকাশ না করায় একজন শিক্ষার্থী বিপুল পরিমাণ টাকা খরচ করেও নিশ্চিত হতে পারবে না সে আদৌ কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবে কিনা। সময়-শ্রম-আর্থিক ব্যয় কমনোর প্রয়োজনে এই গুচ্ছ পরীক্ষা শুরুর কথা বলা হলেও তা শিক্ষার্থীদের জন্য চরম ভোগান্তির বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে। তার উপর আবার দ্বিতীয় বার সুযোগ বন্ধের কথা বলে শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার স্বপ্নকে ধূলিস্যাৎ করার চক্রান্তে নেমেছে এই প্রশাসন। অবিলম্বে আবেদন-ফি প্রত্যহারসহ অন্যান্য দাবিসমূহ মেনে নেয়া না হলে শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলার হুশিয়ারি দেন ছাত্রনেতারা।

সমাবেশ শেষে একটি প্রতিনিধিদল মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য সচিবের সাথে আলোচনায় বসেন। আলোচনায় এক সপ্তাহের মধ্যে এই বিষয়ে গুচ্ছ বিশব্বিদ্যালয় সমন্বয় কমিটির সভায় আলোচনা করা হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন।

 

এসবিএন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


আমাদের ফেসবুক পেইজ