বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:০০ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
“স্বাধীনবাংলা” টেলিভিশন (IP tv) পরিক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে । “ স্বাধীনবাংলা টেলিভিশন” এ দেশের সকল জেলায় প্রতিনিধি নিযুক্ত করা হবে। আগ্রহী প্রার্থীগন সিভি পাঠান এই ঠিকানায়ঃ cv.shadhinbanglatv@gmail.com, Android Apps on Google Play থেকে ডাউনলোড করতে Shadhin Bangla Television লিখে সার্চ করুন ***

ডুমুরিয়ায় শোলমাছ চাষ করে স্বাবলম্বী লক্ষ্ণী মন্ডল

ডুমুরিয়ায় শোলমাছ চাষ করে স্বাবলম্বী

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি:

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার শোভনা ইউনিয়নের মাদারতলা গ্রামে শোল মাছের চাষ করে  সাফল্য অর্জন করেছেন লক্ষ্ণী মন্ডল ।

২০২১-২০২২ আর্থিক সালে রাজস্ব বাজেটের আওতায় দেশীয় প্রজাতির শোল মাছের প্রদর্শনী বাস্তবায়নের মাধ্যমে শোল মাছের চাষ সম্প্রসারণের জন্য  লক্ষ্ণী মন্ডল কে মৎস্য অধিদপ্তরের মাধ্যম প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় ও প্রদর্শনী বাস্তবায়নের জন্য প্রণোদনা হিসেবে পোনা ও মাছের খাদ্য প্রদান করা  হয়। তার প্রদর্শনী পুকুরের আয়তন মাত্র ১২ শতক, মজুদকৃত পোনার পরিমান- ৪,০০০ টি,পোনা বাঁচার হার ছিলো শতকরা ৮০ ভাগ।  বর্তমানে প্রতিটি মাছের গড় ওজন ৭০০-৮০০গ্রাম।

আনুমানিক মোট ব্যয় – ২.০০ লক্ষ টাকা। মাছ বিক্রি করে সাম্ভাব্য আয় হবে ৮.০০ লক্ষ টাকা। আশা করা য়ায় ৬.০০ লক্ষ টাকা লাভ হবে। চাষের মোট সময় ২১০ দিন।

বাড়ীর আঙ্গীনার পুকুরে দেশি জাতের শোল মাছের চাষ করেন লক্ষ্ণী মন্ডল। কম খরচে এক বছরে ১২ শতক জল আয়তনে শোল মাছ উৎপাদন করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি।

লক্ষ্ণী মন্ডলের সাফল্য দেখে তার আশপাশের  অনেক যুবক কৈ, চ্যাং (টাকি), শোল, চিতলসহ বিভিন্ন বিলুপ্তপ্রায় মাছ চাষে উদ্বুদ্ধ হয়েছেন।’

লক্ষ্ণী মন্ডল বাড়ীর কাজের পাশাপাশি  বিলুপ্তপ্রায় চ্যাং (টাকি), কই, চিতলসহ দেশীয় মাছের প্রজাতি টিকিয়ে রাখতেও কাজ করছেন।

তিনি বলেন, ‘কীটনাশক ও সার ব্যবহারের ফলে কৈ, মাগুর, শিং, পাবদা, টেংরা, পুঁটি, মলা, ঢেলা, চেলা, শাল চোপরা, শোল, বোয়াল, আইড়, বাইন, খলিসা,  চিংড়ি, গজার,  চেং, টাকি, চিতলসহ দেশীয় অনেক মাছ বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। তিনি ২০২১ সালে মৎস্য দপ্তরে যান। মৎস্য দপ্তরে তার আগ্রহের কথা জানান এবং প্রশিক্ষণ পাওয়ার জন্য নাম অন্তর্ভুক্ত করে আসেন। এক মাসের মধ্যে প্রশিক্ষণের জন্য ডাক পান। লক্ষ্ণী মন্ডল বলেন প্রশিক্ষণে আমি আমার বাড়ীর আঙ্গিনার ছোট্র এই পুকুরটির কথা বললে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার আমাকে শোলমাছ চাষের জন্য বলেন। এ ব্যাপারে পরে বিস্তারিত পরিকল্পনা করি। তিনি আমাকে একটি প্রদর্শনী দেন এবং আমি মৎস্য দপ্তর হতে ৪০০০ টি শোল মাছের পোনাসহ ২৫০০০ টাকার উপকরন পাই।

 

এসবিএন / রাস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


আমাদের ফেসবুক পেইজ